www.durbinnews.com::জানি এবং জানাই

ইসরাইল-সৌদি-যুক্তরাষ্ট্র: বিশ্ব রাজনীতিতে নতুন জোট!



 আতিক আরাফাত    ২০ মে ২০১৯, সোমবার, ৯:৩৭   আন্তর্জাতিক বিভাগ


পারস্য উপসাগরে মার্কিন রণতরী। যুদ্ধের দামামা। সৌদি স্থাপনায় রহস্যজনক হামলা। হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুকে ইসরাইলি সংস্থার হানা। দৃশ্যত পৃথিবী একটা নতুন যুদ্ধের মুখোমুখি। যদিও অনেক বিশ্লেষকই এটা বিশ্বাস করেন যে, শেষ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র ইরানে হামলা করবে না। ব্যক্তিগতভাবে ডনাল্ড ট্রাম্প এ যুদ্ধে আগ্রহী নন। তবে তাকে নানাভাবে উসকানি দেয়া হচ্ছে। ইসরাইল এবং সৌদি আরবের পক্ষ থেকে উসকানি রয়েছে। উসকানি রয়েছে মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনের তরফেও। ট্রাম্পকে যেকোন একটি যুদ্ধে জড়াতে চান তিনি। বলা হয়ে থাকে, যুদ্ধ ভালোবাসেন বোল্টন।
বছর কয়েক আগে আরব বসন্ত বিশ্ব রাজনীতিতে, বিশেষ করে মধ্যপ্রাচ্যের রাজনীতির অনেক হিসাবই উল্টে দেয়। এটা হয়তো আপনাদের অনেকেরই জানা, মধ্যপ্রাচ্যের এসব শাসকদের প্রতি জনগনের কোন ম্যান্ডেট নেই। আরব বসন্ত ২/১টি সরকারের পতন ঘটালেও অন্যদের মনেও আতঙ্ক তৈরি করে। আর অভূতপূর্ব কিছু পরিবর্তনও হয়নি। সবগুলো আরব দেশ আগে ছিল ইসরাইলের বিরুদ্ধে। ফিলিস্তিনিদের নানাভাবে সাহায্য করতো তারা। কিন্তু আরব বসন্তের পর একমাত্র কাতার ছাড়া সবকয়টি আরব দেশ, বলে রাখা ভালো ওই সব দেশের সরকার ইসরাইলের পক্ষে অবস্থান নেয়। সৌদি যুবরাজ সালমানতো প্রকাশ্যেই ইসরাইলের বিভিন্ন পদক্ষেপের সমর্থন দেন।
ইরান ইস্যু বহুদিন ধরেই ইসরাইল এবং সৌদি আরবকে কাছাকাছি নিয়ে আসছে। দু’টি দেশেরই কমন শত্রু ইরান। ইসরাইল বিশ্বাস করে এ অঞ্চলে একমাত্র ইরানই তার জন্য চ্যালেঞ্জ বয়ে আনতে পারে। আর ইরানতো সৌদি আরবের পুরনো শত্রু। সৌদি আরব ইরানকে তার নিরাপত্তার জন্য হুমকি মনে করে। সৌদি রাজপরিবার আরও একটি বিষয়কে তাদের নিরাপত্তার জন্য হুমকি মনে করে, সেটি হচ্ছে রাজনৈতিক ইসলাম। যে কারণে মুসলিম ব্রাদারহুডের মতো সংগঠনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে যুক্তরাষ্ট্রকে বারবারই প্রভাবিত করে এসেছেন সৌদি শাসকেরা।
এই পরিস্থিতিতে পারস্য উপসাগরের উত্তেজনাকে কাজে লাগাতে চায় সৌদি এবং ইসরাইল। তারা এক ঢিলে বহু পাখি শিকার করতে চায়। যে কারণে ইসরাইল এবং সৌদি যৌথভাবে যুক্তরাষ্ট্রকে উসকানি দিচ্ছে ইরানে হামলা করার জন্য। মধ্যপ্রাচ্যে সৌদি স্বার্থে হামলা মোসাদ ও সৌদি গোয়েন্দাদের সাজানো বলে অনেক বিশ্লেষকই বিশ্বাস করেন।
সে যাই হোক, বিবিসির ওয়াশিংটন ব্যুরো চীফ পল ডানহার মনে করেন, বিশ্ব রাজনীতিতে নতুন একটি অক্ষের অভিষেক হয়েছে। আর সেটি হচ্ছে ইসরাইল-সৌদি-মার্কিন জোট।




 এ বিভাগের অন্যান্য


বাংলাদেশকে না দিলেও মালদ্বীপকে পেঁয়াজ দিচ্ছে ভারত


রেলস্টেশনে চা বিক্রি করে আজ এখানে পৌঁছেছি বললেন মোদী নিজেই


সরকার পতনের হাওয়া জোরদার হচ্ছে যেখানে


সিসির সাথে মধ্যাহ্নভোজে এরদোগানের অস্বীকৃতি


মাটির নীচে আমেরিকার ৬৩ কোটি ব্যারেল তেল ভান্ডার


পার্লামেন্টের প্রস্তাব না মানলে কারাগারে যেতে হতে পারে বরিস জনসনকে


গণতন্ত্রের কাছে এক প্রধানমন্ত্রীর হার


আসামে বাদ পড়াদের জন্য নির্মিত হচ্ছে বন্দিশিবির


নিরাপত্তা বাহিনীর কাঁদানে গ্যাসে মৃত্যু, কাশ্মীরে বিক্ষোভ


আরব শাসকদের কাছে কাশ্মীর নয়, মোদির গুরুত্ব বেশি


মোদিকে সর্বোচ্চ সম্মান দিল আরব আমিরাত


মালয়েশিয়ায় চাপের মুখে জাকির নায়েক


কাশ্মীর: সন্তান জন্মদানের খবরও পাঠানো যাচ্ছে না


কাশ্মীর নামের কারাগারে বন্দি ৭০ লাখ মানুষ


মোদীর সমালোচনার পর গ্রেপ্তার কাশ্মীরি নেতা





All rights reserved www.durbinnews.com