www.durbinnews.com::জানি এবং জানাই

ভারতীয় সেনাদের ছররায় চোখ হারাচ্ছেন কাশ্মীরের যুবকেরা



 দূরবীন ডেস্ক    ৯ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার, ১০:৫২   চলতি হাওয়া বিভাগ


অবরুদ্ধ কাশ্মীর। রাস্তায় রাস্তায় সেনা। মানুষের চেয়ে ভারতীয় সেনার সংখ্যাই যেন বেশি। এইসব উপেক্ষা  করেই উপত্যকা জুড়ে ছড়িয়ে পড়ছে বিক্ষোভের আঁচ। কাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় শুধু শ্রীনগরের ৩০টি জায়গায় কার্ফু অমান্য করে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন মানুষ। তাঁদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাস ছোড়া হয়েছে, ছোড়া হয়েছে ছর্‌রা (পেলেট) বন্দুকও। ছর্‌রা বুলেটের জখম নিয়ে শ্রীনগরের শের-ই-কাশ্মীর ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল সায়েন্সসে ভর্তি চার জন, যাঁদের মধ্যে তিন জনের বয়স ১৫ থেকে ১৮-র মধ্যে। এসব যুবকদের অন্ধ হয়ে যাওয়ার শঙ্কা রয়েছে। গত কয়েক বছরে কাশ্মীরের বহু তরুণ ভারতীয় সেনাদের বুলেটে চোখ হারিয়েছেন। বৃটিশ দৈনিক গার্ডিয়ানের এক রিপোর্টে এর বাস্তব চিত্র ফুটে ওঠেছে।

ওদিকে, ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকার রিপোর্টে বলা হয়েছে, শুক্রবার বিক্ষোভ মাত্রা ছাড়াতে পারে, এমন আশঙ্কা করছেন অনেকে। নামাজের জন্য কার্ফু ও ১৪৪ ধারা শিথিল করার কথা ভাবছে প্রশাসন। আসন্ন ইদের দিনেও নিরাপত্তা শিথিল করার ইঙ্গিত দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সে দিন বিক্ষোভ যাতে না-ছড়ায়, তার জন্য সিআরপি-কে বিশেষ ভাবে তৎপর থাকার নির্দেশ দিয়েছেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভাল।

দু’দিন আগেই লোকসভায় লাদাখের বিজেপি সাংসদ সেরিং নামগিয়াল দাবি করেছিলেন, তাঁর কেন্দ্রের সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষ মোদী সরকারের পাশে রয়েছেন। সেই কার্গিলে কাল হরতাল পালিত হয়েছিল। আজ ১৪৪ ধারার মধ্যেই দফায় দফায় বিক্ষোভ দেখান মানুষ। জয়েন্ট অ্যাকশান কমিটি-র ব্যানারে সব চেয়ে বড় মিছিলটিতে অন্তত ৩০০ মানুষ ছিলেন। কয়েক জনকে আটকও করা হয়। কার্গিলের ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা কামার আলি আখুন বলেন, আমরা চাই লাদাখ, জম্মু ও কাশ্মীর মিলিয়ে একটাই রাজ্য থাকুক। কংগ্রেস নেতা নাসির হুসেন মুন্সি বলেন, আমাদের কথা বলার অধিকার কেড়ে নিয়েছে। শান্তিপূর্ণ মিছিলে বাধা দিয়েছে। এ ভাবে দাবিয়ে রাখা যাবে না।

 




 এ বিভাগের অন্যান্য


রাব্বানীর উদ্দেশ্যে ছাত্রলীগ নেত্রী: আপনাকে আপনার মতো করে প্রটোকল দেইনি বলে পদ পাইনি


সুরমা নদীর আবর্জনা পরিষ্কার করলেন ৩ বৃটিশ এমপি


শোভনকে নেতাকর্মীরা যেন চেনেনই না


জাবি ভিসির কাছে চাঁদা চাওয়া প্রসঙ্গে রাব্বানী: ন্যায্য পাওনা দাবি করেছিলাম


আমরা এখন প্রজায় পরিণত হয়েছি


ছাত্র রাজনীতিতে আস্থা নেই কেন?


স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি, ডেপুটি জেলার ক্লোজড


রোহিঙ্গা তরুণীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা কি সঠিক?


মইনুল হোসেন কেন বার বার কারাগারে?


বাংলাদেশে ধনীদের আয় বাড়ার হার বিশ্বে সর্বোচ্চ


এক পর্দার দাম ৩৭ লাখ টাকা!


মুসলিম নারীদের অধিকারের পক্ষে সরব বৃটিশ শিখ এমপি


জামিন না মঞ্জুর, ফের কারাগারে ব্যারিস্টার মইনুল


জামিন বহাল, মুক্তি পাচ্ছেন মিন্নি


বাদ পড়াদের ফিরিয়ে নিতে বাংলাদেশকে বলা হবে: আসামের অর্থমন্ত্রী





All rights reserved www.durbinnews.com